www.agrovisionbd24.com
শিরোনাম:

দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে ধানের চেয়ে লাভজনক হওয়ায় বাড়ছে পান চাষ

 মোঃহাফিজুল ইসলাম    [ ১৫ নভেম্বর ২০২০, রবিবার, ৯:২৭   কৃষি বিভাগ]



দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে দিন দিন বাড়ছে পান চাষ। ধান, আলুসহ অন্যান্য ফসলের চেয়ে পান চাষ লাভজনক হওয়ায় অনেকেই ঝুঁকছেন পান চাষে। উপজেলার বেশকিছু গ্রামের মাঠে নিজ মেধা ও উদ্যোগে পান চাষ করে ব্যাপক সফলতা পাচ্ছেন কৃষকরা। বিঘাপ্রতি পানের বরজে প্রায় ১ লাখ টাকা খরচ করে পরবর্তী বছর থেকে প্রতি বছর লাভ করছেন ২ থেকে আড়াই লাখ টাকা। এখানকার উৎপাদিত পান উপজেলার চাহিদা মিটিয়ে ৭৫ ভাগ পান সরবরাহ করা হচ্ছে আশেপাশের বিভিন্ন জেলা গুলোতে।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানাগেছে, এ বছর উপজেলায় বাণিজ্যিক ভিত্তিতে ৭ একর জমিতে পানের চাষ হয়েছে। এর মধ্যে উপজেলার ইসুবপুর ইউনিয়নের দক্ষিন নগর গ্রামেই ৮৫ ভাগ পান চাষ করা হয়েছে। বর্তমানে উপজেলার ১৮ টি পরিবার এই পান চাষের সাথে জড়িত।

কৃষকদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, প্রতিবিঘা জমির পানের বরজে মাটির আইল, বেড়া, ছাউনি, শ্রমিক, পানের লতাসহ ১ লাখ টাকা প্রাথমিক অবস্থায় খরচ হয়। পরের বছর থেকে খরচ খুবই সামান্য হয়।
কারণ একটি পানের বরজ তৈরি করার পর মাটির আইল, বেড়া, ছাউনি সংস্কার ছাড়া ৪০-৪৫ বছর পর্যন্ত পানের বরজ অক্ষুণন থাকে। সেখান থেকে পান পাওয়া যায়। একটি পানের বরজ থেকে উৎপাদন বেশি হলে ২ পোয়া (১২৮টি) পর্যন্ত পান পাওয়া যায়। বড় পান পুরাতন ১ পোয়া ৩ হাজার টাকা থেকে ৪ হাজার টাকা, মাঝারি পান ১ পোয়া ১ হাজার ৫শ’ টাকা থেকে ২ হাজার ৫শ’ এবং ছোট পান ৫শ’ টাকা থেকে ১ হাজার ৪শ’ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হয়।

পান চাষী লক্ষী কান্ত বলেন, চিরিরবন্দরে দুই প্রকার পান চাষ হয়, মিষ্টি পান ও সাচি পান। তবে উপজেলায় মোট চাষের ৭০ ভাগই মিষ্টি পান । ধীনেশ চন্দ্র দত্ত একজন পান চাষী বলেন, পান চাষ করেই আমার সংসার চলে, আমি এবং আমার স্ত্রী দুজনেই বরজে কাজ করি। এখান থেকেই আয় করে সংসারের খরচসহ সন্তানদের লেখাপড়া খরচ চালাই।

পানের বরজে কাজ করা যুগেশ,সুচীল,কমলেশ,জানান আমরা দীঘ্রদিন যাবত এখানকার পানের বরজে কাজ করে আসতেছি। এখানে কাজ করে যা উপার্জন করি তা দিয়েই আমাদের সংসার চলে। পান চাষী সনাতন রায় বলেন, দক্ষিণ নগর গ্রামের পান চাষীরা বংশীয় ভাবে বাপ-দাদার পুরোনো পেশাকে আকঁড়ে ধরেই পানের বরজে পান চাষ শুরু করেন। গ্রাম কিংবা শহরে অতিথি আপ্যায়নে এখানকার পান সুস্বাদু হওয়ায় এ পানের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। বর্তমানে এই পান চাষে এই এলাকায় অনেকই সাফল্য অর্জন করেছে।

 

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. মাহমুদুল হাসান জানান, চিরিরবন্দরের মাটি পান চাষের জন্য বেশ উপযুক্ত হওয়ায়, এখানে দীর্ঘদিন ধরে প্রচুর পরিমানে পানের চাষ হয়ে আসছে। বর্তমানে এই এলাকার পান চাষীরা বাণিজ্যিক ভিত্তিতে পানের চাষ করেছে। কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকে কৃষকদের সকল প্রকার পরমর্শসহ সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করা হচ্ছে।

মোঃহাফিজুল ইসলাম

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়




 এ বিভাগের আরও


 মাটির উর্বরতা রক্ষা ও উপযুক্ত ব্যবহারে গবেষণায় প্রাধান্য দিতে হবে


 প্রযুক্তি যাতে মাটির জীববৈচিত্র্যের জন্য হুমকি না হয়: প্রধানমন্ত্রী


 চালের দাম কেজিতে তিন টাকা বাড়ল


 মহাসংকটে ১২শ শ্রমিক, ৭ হাজার আখচাষি


 মাঠে সোনালি উৎসব, তবুও হাসি নেই কৃষকের মুখে


 বেবি তরমুজে ঝুঁকছেন চাষিরা


 হাজীগঞ্জে সাড়ে ৩ হাজার কৃষককে প্রণোদনা প্রদান


 আলুতে মজেছে কৃষক


 সবজি ও ফল চাষের বারো মাসের ক্যালেন্ডার


 শঙ্খচরে সবজি চাষ, মুলার বাম্পার ফলন


 মিশ্র ফসল চাষের পদ্ধতি


 কৃষি প্রণোদনা পেলো চার হাজারের বেশি কৃষক


 মাটির উর্বরতা বাড়াবে কার্বন সমৃদ্ধ জৈব সার


 যেসব ঔষধি গাছ রোগ সারাবে


 বোরো আবাদ ৫০ হাজার হেক্টর বাড়ানো হবে- কর্মকর্তাদের সর্বাত্মক প্রস্তুতি নেয়ার নির্দেশ কৃষিমন্ত্রীর





সম্পাদক ডাঃ মোঃ মোছাব্বির হোসেন
ঠিকানা: বাসা-১৪, রোড- ৭/১, ব্লক-এইচ, বনশ্রী, ঢাকা
মোবাইল: ০১৮২৫ ৪৭৯২৫৮
agrovisionbd24@gmail.com

© agroisionbd24.com 2019